April 7, 2020, 4:14 am

৫ লাখ টাকা দেনমোহর চাওয়ায় স্ত্রীকে মেরে ফেললেন স্বামী

৫ লাখ টাকা দেনমোহর চাওয়ায় স্ত্রীকে হত্যা করে পালিয়ে গেছেন স্বামী। চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলা শহরের পোস্ট অফিস পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।বৃহস্পতিবার দুপুরে এ হত্যাকাণ্ডের পর বিকেলে নিহত গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।পুলিশ জানায়, উপজেলার পাথিলা গ্রামের রেজাউল করিমের ছেলে সুজন মিয়া (২৮) ট্রাকচালক। সম্প্রতি একই উপজেলার পাঁকা গ্রামের বদর উদ্দিনের মেয়ে রুনা খাতুনকে (২৫) ৭৫ হাজার টাকা দেনমোহরে বিয়ে করে সুজন। বিয়ের পর জীবননগর পোস্ট অফিস পাড়ার ইকতিয়ার উদ্দীনের বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিল তারা।বৃহস্পতিবার সকালে বিয়ের দেনমোহর ৭৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ লাখ টাকা দাবি করে স্ত্রী রুনা। এ নিয়ে তাদের ঝগড়া শুরু হয়। একপর্যায়ে ওই বাসার ভাড়াটিয়ারা তাদেরকে থামায়। দুপুর ১টার দিকে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় স্বামী সুজন। পরে ওই বাড়ির ভাড়াটিয়ারা রুনার ঘরে গিয়ে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।বিষয়টি নিশ্চিত করে জীবননগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ গনি মিয়া বলেন, গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার স্বামী পলাতক রয়েছেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Comments are closed.


     এই জাতীয় আরো খবর