April 7, 2020, 2:57 am

ব্যাংক কর্মকর্তার বাসায় গৃহকর্মীর মৃত্যু

মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক এইচএমএ রাজ্জাকের বাসায় লাভলী আক্তার (২১) নামে এক গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ব্যাংক কর্মকর্তার পরিবারের দাবি, বুধবার রাতে লাভলী ছাদ থেকে বাসার পাশের কাঁঠাল গাছে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে তারা আত্মহত্যার কোনো কারণ জানাতে পারেনি। সুরতহাল শেষে বৃহষ্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।নিহত লাভলী আক্তার এতিম এবং বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছিলেন। ৬ বছর আগে সুনামগঞ্জে কর্মরত অবস্থায় তাকে খুজে পান এবং পুলিশ বা কাউকে কিছু না জানিয়ে মানবিক কারণে নিজের কাছে আশ্রয় দেন বলেও দাবি করেন ব্যাংক কর্মকর্তা রাজ্জাক। এ ব্যাপারে দেবীগঞ্জ থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।লাভলী আক্তার নিহতের পর ব্যাংক কর্মকর্তা এইচএমএ রাজ্জাক লিখিতভাবে পুলিশকে জানায়, গত ৬ বছর আগে তিনি সুনামগঞ্জে কর্মরত অবস্থায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী লাভলী আক্তারকে খুঁজে পান। সে তার বাবা মায়ের নাম ঠিকানা বলতে পারেননি। সম্প্রতি তিনি পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে বদলি হয়ে আসেন। তিনি দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের স্টাফ কোয়াটার মহানন্দার ৪নং ফ্লাটে থাকতেন। তার পরিবারের সঙ্গে থাকতেন লাভলী আক্তার। বুধবার রাতে বাসায় দেখতে না পেয়ে তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। পরে বাসার ছাদে গিয়ে তারা পাশের কাঁঠাল গাছের সঙ্গে লাভলীকে ফাঁস দেয়া অবস্থায় ঝুলন্ত দেখতে পান। তবে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই তার লাশ নামানো হয়। এ নিয়ে প্রতিবেশীসহ স্থানীয়দের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। অনেকের দাবি, এটা আত্মহত্যার ঘটনা নয়। সঠিকভাবে তদন্ত করা হলে অন্য কোনো ঘটনা বেরিয়ে আসতে পারে।প্রতিবেশী কাচারিপাড়া মহল্লার আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মেয়েটি এতিম ছিল। আমাদের সন্দেহ এটা আত্মহত্যা নয়, তাকে নির্যাতন করা হতে পারে। এ নিয়ে অভিযোগ করার মতো কেউ নেই। তবে ঘটনাটি সঠিকভাবে তদন্ত হওয়া প্রয়োজন।দেবীগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, সুরতহাল দেখে এটা প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। মরদেহ ব্যাংক কর্মকর্তার কাছেই হস্তান্তর করা হবে।

Comments are closed.


     এই জাতীয় আরো খবর