May 26, 2020, 1:46 pm

বেসরকারি দুই বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

জনকণ্ঠ নিউজঃ  নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় রাজধানীর ইস্ট ওয়ের্স্ট ও ব্র্যাক দুটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। আজ পৃথক ভাবে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। আর নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণার গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

সোমবার রাতে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়নি। তবে গত কয়েকদিন ধরে যান চলাচল বন্ধ থাকায় বিশ্ববিদালয়ের সব পরীক্ষা বন্ধ রাখা হয়েছে। পরিবহন সংকটে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে আসতে পারছে না তাই স্থগিত করা হয়েছে। আগামীকাল শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির ওপর নির্ভর করে পরীক্ষা ও ক্লাস নেওয়ার বিষয়টি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সোমবার দিনভর সংঘর্ষের পর সন্ধ্যায় রাজধানীর আফতাবনগর এলাকার ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিষ্ট্রার মাসফিকুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- মঙ্গল ও বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। বৃহস্পতিবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয় স্বাভাবিক কার্যক্রমে ফিরে যাবে। তবে ৯ থেকে ১১ অগাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সামার সেমিস্টারের ফাইনাল পরীক্ষা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

মহাখালীর ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ফয়জুল ইসলাম এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। শিক্ষার্থীদের আসন্ন পরীক্ষায় বর্ধিত ছুটি হিসেবে এই ছুটি ঘোষণা করা হলো। মুলত শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য ছুটি দেওয়া হয়েছে বলে অন্য এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

এছাড়া ধানমন্ডিতে অবস্থিত ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস ইউনিভার্সিটির (ইউল্যাব) সোমবার ও মঙ্গলবার সব কার্যক্রম বন্ধ । বিশ্ববিদ্যালয়ের নোটিশ বোর্ডে এ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। বসুন্ধরায় অবস্থিত ইনডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয় অঘোষিতভাবে বন্ধ রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে কোন ক্লাস-পরীক্ষা হয়নি আজও। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের পরিচালক খন্দকার আমিনুল হক বলেন, এক সপ্তাহ আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ক্লাস শেষ হয়েছে। গতকাল রবিবার থেকে পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সব ধরনের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

Comments are closed.


     এই জাতীয় আরো খবর