April 5, 2020, 3:57 pm

প্রেম ভেঙে গেলে যে কাজগুলো করতে একদম ভুলবেন না!

জীবনে কিছু কিছু সময় জটিল সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে প্রিয় মানুষটির সঙ্গে ব্রেক আপ! যদিও একটা বয়সের পর এই সমস্যাকে জীবনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হয়। কিন্তু তরুণ বয়সে অনেক এই সমস্যার সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেন না। ফলে অনেকেই হঠকারী সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলতে পারে। যা আপনার জীবনে জন্য বড় ধরনের ক্ষতির কারণ হতে পারে।

এ বিষয়ে মনোবিদরা বলছেন, একটা অভ্যাসে অভ্যস্ত হয়ে ওঠা জীবন, এক জন বিশেষ মানুষের উপস্থিতিতে দিন পার করে। এ সব হারিয়ে ফেলার ভয়েই অনেকে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়া সহ্য করতে পারেন না। একা থাকার ভয় তাঁদের ঘিরে ধরে। নিরাপত্তাহীনতাই হঠকারী করে তোলার পথে এগিয়ে নিয়ে যায় তাঁদের।

দেখা যায়, অনেকের নতুন প্রেম ডালপালা মেলেছে। আবার কেউ বা উৎসবের মরসুমেই সদ্য হারিয়েছেন পুরনো প্রেম। জীবনের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে আছে নয়া বাঁক। সে ক্ষেত্রে অনেকেই সম্পর্ক ভাঙাকে সহজে সামলান, আবার অনেকে তা একেবারেই পারেন না।

তবে সম্পর্ক সুন্দর রাখার চেষ্টায় যেমন কোনও ত্রুটি রাখলে চলে না, তেমনই সম্পর্ক ভেঙে গেলে তা সামলানোর উপায়ও জানতে হবে বইকি!

বিষয়টি নিয়ে মনস্তত্ত্ববিদ অমিতাভ মুখোপাধ্যায় জানালেন, এমন কিছু উপায়ের কথা।

কী কী উপায়ে এই সমস্যার মোকাবিলা করা যাবে জেনে নিন সহজেই?

প্রথমত, এমন পরিস্থিতি সামলানোর মতো ক্ষমতা সকলের থাকে না। মনের জোরের উপর নির্ভর করে কে কতটা সহজে এমন সমস্যার সঙ্গে যুঝতে পারবেন। যদি মনে হয়, এ সমস্যার মোকাবিলা একা সম্ভব নয়, তা হলে অবশ্যই মনোবিদের সাহায্য নিন। কিছু নিয়মমাফিক চিকিৎসা ও কাউন্সেলিং সহজেই স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনবে।

দ্বিতীয়ত, সত্যকে স্বীকার করুন সহজেই। জীবনের নানা প্রান্তে নানা ঘটনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে। তাই ভবিষ্যতে কী হবে তা নিয়ে ভয় না পেয়ে যা ঘটেছে তাকে সহজেই মেনে নিন। প্রয়োজনে প্রেমের পুরনো স্মৃতি রয়েছে এমন জায়গাগুলো এড়িয়ে যান।

তৃতীয়তলেখার অভ্যাস আছে? লেখাও মানসিক চাপমুক্তির একটা মাধ্যম। তাই প্রেম ভাঙলে ফেলে আসা দিনের কথা লিখে ফেলুন কোথাও।

চতুর্থত, খুব বেশি ভাবেন কি? তা হলে সে ভাবনায় রাশ টানুন। যে কোনও বিষয়ে যত বেশি ভাববেন, সে ভাবনা তত বেশি চেপে বসবে মাথায়। চেষ্টা করুন একা সময় না কাটিয়ে, ঘনিষ্ঠ জনদের সঙ্গে সময় কাটাতে।

পঞ্চমতপ্রয়োজনে পুরনো সঙ্গীর নম্বর ফোন থেকে মুছে দিন। সোশ্যাল সাইট থেকেও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করুন। তাতে বারবার তাঁকে টেক্সট করা বা ফোন করতে চাওয়ার প্রবণতা কমবে।

ষষ্ঠতপুরনো সঙ্গী সম্পর্কে খবর দিতে পারে এমন কোনও মানুষ আপনার চারপাশে থাকলে, সদ্য সদ্য প্রেম ভাঙার সময়ে হয় তাঁকে এড়িয়ে চলুন নয়তো নিষেধ করুন কোনও প্রকার খবরাখবর আপনাকে দিতে। মন স্বাভাবিক হলে ফের যোগাযোগ শুরু করতে পারেন তাঁর সঙ্গে।

Comments are closed.


     এই জাতীয় আরো খবর